জাতীয়

বাইক না পেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে ছাত্রের আত্মহ’ত্যা

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে মোটরসাইকেল (বাইক) কিনে না দেওয়ায় হানিফ পালোয়ান (১৬) নামে এক শিক্ষার্থী ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে ফাঁ’সিতে ঝুলে আত্মহ’ত্যা করেছে।

বুধবার (২০ জুলাই) রাতে সরিষাবাড়ী পৌরসভা’র উপজে’লা চত্বর কলোনিতে এ ঘটনা ঘটে।

হানিফ উপজে’লার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর সরিষাবাড়ী গ্রামের সাহের পালোয়ানের একমাত্র ছে’লে এবং সরিষাবাড়ী রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন।

স্থানীয়রা জানায়, ছোট’কাল থেকেই মোটরসাইকেলের প্রতি তার ব্যাপক আগ্রহ ছিল। পুরাতন একটি মোটরসাইকেল পরিবারের পক্ষ থেকে কিনেও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তার শখ ছিল নতুন একটি মোটরসাইকেলের। টাকাও জোগাড় করার চেষ্টা চলছিল। কিন্তু আবেগের বশে বুধবার (২০ জুলাই) রাত আনুমানিক ১০টায় ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে ফাঁ’সিতে ঝুলে আত্মহ’ত্যা করে সে। এরপর তাকে উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, আগেই তার মৃ’ত্যু হয়েছে।

হানিফ পালোয়ানের চাচা শাহীনুর রহমান বলেন, ছে’লেটি বাবা-মায়ের খুবই আদরের সন্তান ছিল। যখন যা আবদার করতো তাই পূরণ করার চেষ্টা করতেন বাবা-মা। কিন্তু মোটরসাইকেল যেহেতু অনেক টাকার ব্যাপার তাই টাকা জোগাড় করতে দেরি হওয়ায় বাবা-মায়ের সঙ্গে অ’ভিমান করে আত্মহ’ত্যা করে সে। তার মৃ’ত্যুতে আমাদের কারও প্রতি কোনো অ’ভিযোগ নেই।

সরিষাবাড়ী উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. দেবাশীষ রাজবংশী বলেন, হানিফ পালোয়ান নামে ছে’লেটিকে সাড়ে ১০ টায় উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার আত্মীয়-স্বজনরা নিয়ে আসেন। কিন্তু হাসপাতা’লে আনার আগেই তার মৃ’ত্যু হয়।

সরিষাবাড়ী থা’নার অফিসার ইনচার্জ (ওসি ত’দ’ন্ত) আব্দুল মজিদ মৃ’ত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Back to top button