জাতীয়

ফখরুল ও রিজভীর বি’রু’দ্ধে থা’নায় অ’ভিযোগ আওয়ামী লীগ নেতার

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ‘অশালীন ও উসকানিমূলক’ বক্তব্য দেওয়ার অ’ভিযোগে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ই’স’লা’ম আলমগীর ও যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ কয়েকজনের বি’রু’দ্ধে পল্টন থা’নায় মা’ম’লার আবেদন করেছেন এক আওয়ামী লীগ নেতা।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মো. রিয়াজ উদ্দিন বৃহস্পতিবার রাতে ওই অ’ভিযোগ দাখিল করেন বলে মহানগর পু’লিশের মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার মোহাম্ম’দ আব্দুল আহাদ জানান।

পল্টন থা’নার ওসি মোহাম্ম’দ সালাউদ্দিন বলেন, “আম’রা অ’ভিযোগ রেখেছি। সিনিয়র স্যারদের সঙ্গে কথা বলে এবং তাদের নির্দেশনায় পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, অ’ভিযোগটি মা’ম’লা হিসেবে গ্রহণ করা হলে তা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে হবে।

রিয়াজ উদ্দিনের অ’ভিযোগনামায় মীর্জা ফখরুল ই’স’লা’ম আলমগীর, রুহুল কবির রিজভী, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ছাত্রদলের সভাপতি কাজী রওনাকুল ই’স’লা’ম শ্রাবণ, সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদলের আহ্বায়ক পাভেল সিকদার, যুগ্ম আহ্বায়ক গো’লাম রাব্বানী রবিন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, মাহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুসহ অ’জ্ঞা’তনামা আরো অনেকের নাম এসেছে।

তাদের বি’রু’দ্ধে অ’ভিযোগ, ১৬ ও ১৭ জুলাই প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন স্থানে তারা ‘প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে অশালীন এবং রাষ্ট্রবিরোধী উসকানিমূলক’ বক্তব্য দেন।

তাছাড়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু আহমেদ মন্নাফীকেও উদ্দেশ্যে করেও তারা ‘মানহানিকর বক্তব্য’ দেন বলে অ’ভিযোগ করেছেন রিয়াজ উদ্দিন।

তার ভাষ্য, “তাদের এই ধরনের প্রচারের ফলে তাহাদের নেতাকর্মীরা পরিক’ল্পি’তভাবে বিভিন্ন শ্রেণি বা সম্প্রাদায়ের মধ্যে শত্রুতা, ঘৃ’ণা বা বিদ্বেষ সৃষ্টিসহ দেশে অস্থিরতা সৃষ্টি ও আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করছে।“তাহারা ঢাকা শহরের বিভিন্ন থা’না এলাকায় জ’ঙ্গি মিছিল বাহির করিয়া আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির চেষ্টা করে ও আবু আহমেদ মান্নাফীর কুশপুত্তলিকা দাহ করে।”

Back to top button