বিনোদন

যে কারণে বিয়ের খবর দুই মাস আড়ালে রাখেন পূর্ণিমা

দুই মাস আগেই দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। যদিও খবরটি জানাজানি হয় গতকাল বৃহস্পতিবার।

পূর্ণিমা’র প্রথম স্বামীর নাম আহমেদ ফাহাদ জামাল। এর আগে বিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা গেলেও ফাহাদকে ডিভোর্সের বিষয়ে কোনো তথ্যই আসেনি গণমাধ্যমে।

গত ২৭ মে পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন পূর্ণিমা। যে খবরও পূর্ণিমা’র ঘনিষ্ঠজনরা ছাড়া আর কেউ জানত না। এমনটি পূর্ণিমা’র প্রথম স্বামী ফাহাদও জানতেন না তার সাবেক স্ত্রী’র দ্বিতীয় বিয়ের খবর।

দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়টি এতদিন কেন আড়ালে রেখেছিলেন, তার কারণও জানিয়েছেন পূর্ণিমা। জানালেন কেন ফের বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হলেন সে কথাও।

‘মনের মাঝে তুমি’খ্যাত চিত্রনায়িকা জানালেন, প্রথম সংসারে তার একটি মে’য়ে আছে, যার বয়স ৮ বছর। সে কথা বিবেচনায় রেখেই এমনটি করেছেন।

পূর্ণিমা বলেন, ‘(ফাহাদের সঙ্গে) আমা’র স’ম্প’র্ক নেই প্রায় তিন বছর। যেহেতু আমা’র একটি মে’য়ে আছে। মে’য়ের বাবা সে। মে’য়েটা স্কুলে পড়ে। সব বিবেচনা করে আম’রা বিষয়টি জানাতে চাইনি। তা ছাড়া বিয়ের পরেই তিনিসহ পরিবারের অন্যরা অ’সুস্থ ছিলেন। কেউ কেউ ক’রো’নায় আ’ক্রা’ন্ত ছিলেন। এ জন্য বিয়ের খবর জানাতে দেরি হয়েছে।’

দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়ে পূর্ণিমা বলেন, ‘প্রথম বিয়ের স’ম্প’র্কে আমা’র আগে থেকেই ঝামেলা ছিল। তা না হলে তো কেউ ইচ্ছা করে সংসার ভাঙতে চায় না, তাই না! নতুন জীবনে পা দিয়েছি। সবার কাছে দোয়া চাই। ’

 

পূর্ণিমা’র স্বামীর নাম আশফাকুর রহমান রবিন। একটি বহুজাতিক কোম্পানির বিপণন বিভাগের উচ্চপদস্থ কর্মক’র্তা। লেখাপড়া করেছেন অস্ট্রেলিয়ার সিডনির একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে।

বর হিসেবে কেন রবিনকেই বেছে নিলেন পূর্ণিমা? সেই সিদ্ধান্ত নিতেও মে’য়ে আরশিয়া উমাইজার ভবিষ্যতের কথাই জানালেন এ নায়িকা।

বললেন, ‘চার কি পাঁচ বছর আগে কাজের সূত্রেই তার (রবিন) সঙ্গে পরিচয়। সেখান থেকেই একটা ভালো বোঝাপড়া, বন্ধুত্ব হয়েছে। আমাদের ঘনিষ্ঠতা বাড়লে পরিবার থেকেই বলা হয় বিয়ের স’ম্প’র্কে জড়াতে। অবশেষে দুই পরিবারের ইচ্ছাতেই তো বিয়েটা হলো, সবাই খুশি। আমা’র মে’য়েসহ সবাইকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন গ্রহণ করে নিয়েছেন, খুবই আদর করছেন। আমা’র মা–ও সবাইকে সুন্দরভাবে গ্রহণ করে নিয়েছেন।’

মে’য়ে এখন পূর্ণিমা’র সঙ্গেই আছে এবং মায়ের নতুন স’ম্প’র্ককে সে ভালো’ভাবেই গ্রহণ করেছে বলে জানান এ নায়িকা।

জানা গেছে, বর্তমানে রাজধানীর একটি অ’ভিজাত এলাকায় স্বামী রবিনের সঙ্গে বসবাস করছেন পূর্ণিমা।

গত ২৭ মে পারিবারিকভাবে ছোটখাটো আয়োজনে বাসাতেই বিয়ের অনুষ্ঠান করেন পূর্ণিমা। তিনি জানালেন, এবার বড় আয়োজন করেই বিয়ের অনুষ্ঠান করবেন।

এদিকে পূর্ণিমা’র দ্বিতীয় বিয়ের খবরে বিস্মিত হলেও নবদম্পতিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তার প্রথম স্বামী আহমেদ ফাহাদ জামাল।

গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, পূর্ণিমা’র বিয়ের খবর আমিও জানতাম না। গণমাধ্যমের বরাতে এখন জেনেছি। তাদের জন্য শুভ কা’মনা রইল। আর আমা’র সন্তানের জন্য প্রার্থনা রাখবেন।

প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী আহমেদ ফাহাদ জামালকে ভালোবেসে বিয়ে করেন পূর্ণিমা। ২০১৪ সালে কন্যাসন্তানের মা হন তিনি।

 

Back to top button