জাতীয়

সবাই ধৈর্য ধরুন, বর্তমান সংকট বেশিদিন থাকবে না

দেশব্যাপী বিদ্যুৎ সংকট চরম আকার ধারণ করেছে।এ অবস্থা মোকাবিলায় ইতোমধ্যে সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে এলাকাভিত্তিক লোডশেডিং, রাত আটটার পর শপিংমল, দোকানপাট বন্ধ রাখাসহ বিভিন্ন পদক্ষেণ নেওয়া হয়েছে।সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, অল্প সময়ের মধ্যেই এই সংকট সমাধান হয়ে যাবে।

শুক্রবার বিকালে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ নিয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

পোস্টে প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘আম’রা সব সময় বলে আসছি বর্তমান সংকট সাময়িক সময়ের জন্য। এই সমস্যা খুব বেশিদিন থাকবে না। তবুও বর্তমান বিদ্যুৎ সমস্যার জন্য সম্মানিত গ্রাহকদের কাছে আম’রা দুঃখ প্রকাশ করছি এবং সবার সহযোগিতাও কা’মনা করি।’

তিনি বলেন, ‘সংকট সমাধানে আম’রা সারা দেশে শিডিউল ভিত্তিক লোডশেডিং দিতে বাধ্য হচ্ছি। তবে এক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ করে লোডশেডিংয়ের বিষয়ে নতুন পরিকল্পনা নেওয়া হবে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী কয়েক মাসের মধ্যে পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিট ও রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু হয়ে যাবে এবং একইসঙ্গে ভা’রতের আদানী পাওয়ার প্ল্যান্ট থেকে ১৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আম’দানি শুরু হলে ৪ হাজারের বেশি মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমাদের জাতীয় গ্রিডে যু’ক্ত হবে।’

তিনি দেশবাসীকে ধৈর্য ধ’রার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, ‘সবার প্রতি অনুরোধ ধৈর্য ধরুন। এই কঠিন সময়ে আপনাদের সবার সহযোগিতা আমাদের একান্ত কা’ম্য।’

Back to top button