জাতীয়

সরকার পতনে সম্মিলিত আ’ন্দোলনে ঐক্যমত বিএনপি-জেএসডি

সরকার পতনে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে সম্মিলিতভাবে আ’ন্দোলন নামতে ঐক্যমত হয়েছে বিএনপি-জেএসডি। রোববার বিকালে আ স ম আবদুর রবের নেতৃত্বাধীন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-ডেএসডির সঙ্গে দেড় ঘন্টার সংলাপ শেষে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ই’স’লা’ম আলমগীর সাংবাদিকদের একথা জানান।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার থাকলে আম’রা কোনো নির্বাচনে অংশ গ্রহন করব না। শুধু তাই নয়, আম’রা এক সঙ্গে এক জোটেই কাজ করব যেন আম’রা এই সরকারকে পরাজিত করে সত্যিকার অর্থেই জনগনের কাছে একটা গ্রহনযোগ্য নির্বাচন করতে পারি। সেই লক্ষ্যে আম’রা কাজ করতে একমত হয়েছি।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের এই ঐক্যমত শুধু নির্বাচন নয়, আম’রা যেন রাষ্ট্রের একটা আমূল পরিবর্তন করতে পারি। ৭১’ সালে স্বাধীনতা যু’দ্ধে আম’রা যে স্বপ্ন দেখেছিলাম সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে আম’রা যৌথভাবে কাজ করার চিন্তা করেছি। আম’রা মনে করি, আ’ন্দোলনের মধ্য দিয়েই ঐক্য গড়ে উঠবে। আ’ন্দোলনের মধ্য দিয়ে ভবিষ্যতই বলে দেবে, আম’রা কোন পথে এগুব, আ’ন্দোলনের ধারা ও গতি কি হবে।

এসময় আ স ম আবদুর বর বলেন, এবারের আ’ন্দোলনের লক্ষ্য হবে একই সঙ্গে স্বৈরাচার সরকারের পতন, নি’পীড়নমূলক অগণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার উচ্ছেদ, শাসনতন্ত্র পরিবর্তন, দলীয় সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন নয়। আম’রা মাঠে নামব। মাঠে জনগন আমাদের থাকবে, তারাই ডিক্টেড করবে আম’রা কোথায় যাবো? আ’ন্দোলনের কৌশল ঠিক হবে মাঠে। এই আলোচনায় আম’রা ২১ দফা দাবিনামা নিয়ে কথা বলেছি। জাতীয় রাজনীতির প্রয়োজনে আ’ন্দোলনের স্বার্থে আমাদের এই আলোচনা অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, আম’রা ২০১৮ সালে একসঙ্গে আ’ন্দোলন করেছি। এবার পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে জাতীয় সরকারের একটা কর্মসূচি ঘোষণা করেছি। আজকে দেশে জনগনের মালিকানা নেই। এবার আম’রা স্বাধীনতার আকাংখিত রাষ্ট্র বিনির্মাণ শুরু করব। এই আ’ন্দোলনই হবে আমাদের দ্বিতীয় মুক্তিযু’দ্ধ।

উত্তরার ৩ নং সেক্টরে আ স ম আবদুর বরের বাসায় বিএনপির সঙ্গে এ সংলাপ হয়। বিএনপি প্রতিনিধি দলে মির্জা ফখরুল ছাড়াও স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, ইকবাল হাসান মাহম’দু টুকু ও মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক জহিরউদ্দিন স্বপন উপস্থিত ছিলেন। সংলাপে চার সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব।

অন্যরা হলেন, দলটির সাধারণ সম্পাদক ছানোয়ার হোসেন তালুকদার, কার্যকরী সাধারণ সম্পাদক শহিদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন ও সহসভাপতি তানিয়া রব।

সরকার বিরোধী আ’ন্দোলনে বৃহত্তর প্ল্যাটফর্ম গড়তে তুলতে বিএনপি মহাসচিব ২৪ মে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ শুরু করে। প্রথম দফায় মাহমুদুর রহমান মান্নার নাগরিক ঐক্য, জোনায়েদ সাকির গনসংহতি আ’ন্দোলন, সাইফুল হকের বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সঙ্গে সংলাপ করেন তিনি।

এছাড়া এই পর্যন্ত বিএনপি ২০ দলীয় জোটের শরিক জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর), জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা), বাংলাদেশ লেবার পার্টি, ন্যাপ-ভাসানী, মু’সলিম লীগ, ই’স’লা’মী ঐক্যজোট, জমিয়তে উলামায়ে ই’স’লা’ম, সাম্যবাদী দল, ডেমোক্রেটিক দলের সঙ্গেও সংলাপ শেষ করেছে বিএনপি।

Back to top button