জাতীয়

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ‘বড় দুঃখ’

ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া সুস্থ হয়ে ফিরে আসবেন- এমন আশা ছিল পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের। ‘কিন্তু তিনি ফিরে আসলেন না- এটাই সবচেয়ে বড় দুঃখ’ বলে শোক প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

সোমবার রাজধানীর জাতীয় ঈদগাহে ডেপুটি স্পিকারের জানাজায় অংশ নিতে এসে আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া সাধারণ একজন মানুষ, তিনি অ’ত্যন্ত ভালো একজন মানুষ ছিলেন’ বলে মন্তব্য করেন আব্দুল মোমেন।

স্মৃ’তিচারণ করে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রথম যখন নির্বাচনের প্রার্থী হই, আম’রা দুজন পাশাপাশি টেবিলে বসে ফরম পূরণ করি। একসঙ্গে জমা দিই। তিনি তার সব ধরনের সমস্যা আমা’র সঙ্গে শেয়ার করতেন।’

ফজলে রাব্বী মিয়া অ’সুস্থতা সারাতে বিভিন্ন দেশে গেছেন জানিয়ে মোমেন আরও বলেন, ‘আমা’র আশা ছিল, তিনি সুস্থ হয়ে ফিরে আসবেন। তিনি ফিরে আসলেন না- এটাই সবচেয়ে বড় দুঃখ।

২২ জুলাই রাত ২টার দিকে (নিউইয়র্ক সময় বিকেল ৪টা) যু’ক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতা’লে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মা’রা যান ফজলে রাব্বী মিয়া। ক্যান্সারে আ’ক্রা’ন্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

১৯৪৬ সালের ১৫ এপ্রিল গাইবান্ধা জে’লার সাঘাটা উপজে’লার গটিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন ফজলে রাব্বী মিয়া। তার বাবার নাম ফয়জার রহমান এবং মায়ের নাম হামিদুন নেছা।

 

Back to top button