জাতীয়

ট্রেন-বাস সং’ঘ’র্ষে ৫ জন নি’হ’তের ঘটনা ত’দ’ন্তে কমিটি

গাজীপুরের শ্রীপুরে ট্রেন ও বাসের সং’ঘ’র্ষে পাঁচ জন নি’হ’তের ঘটনায় পাঁচ সদস্যের ত’দ’ন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ের ঢাকা ও ময়মনসিংহের পাঁচ কর্মক’র্তাকে ত’দ’ন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সোমবার (২৫ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টায় ওই কমিটির সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। রেললাইনের পাশ থেকে বাসটি কিছু দূরে সরানোর নির্দেশনাও দিয়েছেন তারা।

কমিটির সদস্যরা হলেন- রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মক’র্তা আমিনুল হক, সহকারী যান্ত্রিক প্রকৌশলী আলাউদ্দিন, সহকারী সার্জেন্ট ডা. শাকিব শাহরিয়ার, ময়মনসিংহ রেল বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী নারায়ণ প্রসাদ সরকার ও ময়মনসিংহ রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর এসআই আরিফুল ই’স’লা’ম। রবিবার (২৪ জুলাই) রাতে ত’দ’ন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

তবে দু’র্ঘ’ট’নাকবলিত বাসটি রেললাইনের পাশ থেকে এখনও সরিয়ে না নেওয়ায় স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। চলাচলরত ট্রেনের ঝাঁকুনিতে দু’র্ঘ’ট’নাকবলিত বাসটি ধীরে ধীরে রেললাইনের দিকে সরে যাচ্ছে। ওই বাসের ওপর লাল পতাকা টানিয়ে রাখা হয়েছে।

স্থানীয় মাইজপাড়া এলাকার বাসিন্দা বেলায়েত হোসেন বলেন, ‘দুদিন হতে চলেছে দু’র্ঘ’ট’নাকবলিত বাসটি এখনও সরানো হয়নি। ট্রেন ও মানুষজন ঝুঁ’কি নিয়ে দু’র্ঘ’ট’নাস্থলের আশপাশ দিয়ে যাতায়াত করছে। এটি দ্রুত সরানো উচিত ছিল।’

একই এলাকার বাসিন্দা মোমেন হোসেন বলেন, ‘দু’র্ঘ’ট’নাকবালিত বাসটি রেললাইনের পাশে ঝুঁ’কিপূর্ণ অবস্থায় পড়ে রয়েছে। দুদিন হতে চললো- এখনও সরানো হয়নি।

ময়মনসিংহ রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী এ টি এম নাজমুল হক মৃধা বলেন, ‘যারা গেটম্যানের দায়িত্বে ছিলেন তারা দু’র্ঘ’ট’নার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন। দু’র্ঘ’ট’নাকবলিত বাসটি রেললাইনের কাছাকাছি হওয়ায় এটি সরানোর জন্য এসেছি। দু’র্ঘ’ট’নার পর স্থানীয় রেলকর্মীরা গেটটি পরিচালনা করছেন।’

ঢাকা রেলওয়ের সহকারী পরিবহন কর্মক’র্তা আমিনুল হক বলেন, ‘পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট ওই কমিটি আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন জমা দেবে। ত’দ’ন্তের অংশ হিসেবে সোমবার কমিটির সদস্যরা প্রথম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রাথমিকভাবে রেলওয়ের গেটম্যানের দায়িত্বে অবহেলা পাওয়া গেছে। গেটম্যান আল আমিনকে রবিবারই বরখাস্ত করা হয়েছে। নি’হ’ত হিসেবে হাসপাতাল থেকে আম’রা তিন জনকে পেয়েছি। তবে স্থানীয় লোকজন বলছেন, স্থানীয় হাসপাতাল থেকে রেফার্ড করার পর আরও দুজন মা’রা গেছেন।’

প্রসঙ্গত, রবিবার (২৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজে’লার মাইজপাড়া কমলাদিঘী এলাকায় চলন্ত ট্রেন শ্রমিকবহনকারী বাসটিকে ধাক্কা দিলে পাঁচ জন নি’হ’ত ও কমপক্ষে ২০ জন আ’হত হন। নি’হ’ত তিন জন ট্রেনের ইঞ্জিনের সম্মুখভাগে বসা ছিলেন।

Back to top button