জাতীয়

‘নগদ ই’স’লা’মিক’ আয়োজিত ‘সন্তানের কণ্ঠে কোরআন তিলাওয়াত’ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা

ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ ই’স’লা’মিক’-এর আয়োজনে ‘নগদ’ উদ্যোক্তাদের ‘সন্তানের কণ্ঠে কোরআন তিলাওয়াত’ গ্র্যান্ড ফিনালে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই প্রতিযোগিতায় তিন বিভাগে বিজয়ী হয়েছেন কুমিল্লার সাকিবুল ই’স’লা’ম, বরিশালের মোহাম্ম’দ ফাহিমুর রহমান এবং ময়মনসিংহের মোহাম্ম’দ লাবিব আল হাসান।

পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ‘নগদ’এর নির্বাহী পরিচালক এবং নগদ ই’স’লা’মিক শরীয়াহ সুপারভিসারি কমিটির সদস্য মোহাম্ম’দ আমিনুল হক, ‘নগদ’-এর প্রধান বিপনন কর্মক’র্তা শেখ আমিনুর রহমান এবং ‘নগদ’-এর প্রধান বিক্রয় কর্মক’র্তা মো: শিহাব উদ্দিন চৌধুরী।

মাত্র সাড়ে তিন বছর আগে যাত্রা শুরু করা ‘নগদ’ এখন সাড়ে ছয় কোটি গ্রাহকের বিশাল এক পরিবার। এই পরিবারের বড় অংশ হলেন ২ লাখ উদ্যোক্তা। এই দুই লাখ উদ্যোক্তার সন্তানদের জন্য ‘নগদ ই’স’লা’মিক’ আয়োজন করে ‘সন্তানের কণ্ঠে কোরআন তিলাওয়াত’ শীর্ষক প্রতিযোগিতা।

‘সন্তানের কণ্ঠে কোরআন তিলাওয়াত’ প্রতিযোগিতার প্রথম ধাপে ১০টি অঞ্চলে প্রতিযোগিরা অংশ নেন। প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় তিনটি বয়সভিত্তিক গ্রুপে। গ্রুপগুলো ছিলো: ৩ থেকে ৬ বছর বয়সভিত্তিক, ৭ থেকে ১১ বছর বয়সভিত্তিক এবং ১২ থেকে ১৬ বছর বয়সভিত্তিক।এখানে ৬ হাজারেরও বেশি শি’শু নিজেদের কণ্ঠে কোরআন তিলাওয়াত রেকর্ড করে পাঠান।

অনলাইনে এই ভিডিওগুলো পাঠানো হয়। এর প্রতিটি ভিডিও দেখে যাচাইবাছাই করেছেন ‘নগদ ই’স’লা’মিক’-এর শরিয়াহ সুপারভাইজারি কমিটির সদস্যরা । তারা এই ৬ হাজার প্রতিযোগী থেকে বেছে নেন ৩০ জন সেরা প্রতিযোগীকে । প্রতিটি বয়সভিত্তিক গ্রুপ থেকে বেছে নেওয়া হয় ১০ জন করে শীর্ষ তেলোয়াতকারী।

বিচারকদের দায়িত্বে ছিলেন সম্মানিত বিচারক শরীয়াহ সুপারভিজ’রি কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক অধ্যাপক ড. এইচ এম শহীদুল ই’স’লা’ম বারাকাতি এবং শরীয়াহ সুপারভিজ’রি কমিটির সদস্য মা’ওলানা মুফতি মাহমুদুল হাসান মাদানী।

এই ৩০ জন তিলাওয়াতকারীকে নিয়ে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয় ‘সন্তানের কণ্ঠে কোরআন তিলাওয়াত’ গ্র্যান্ড ফিনালে। জাকজমকপূর্ণ এই গ্র্যান্ড ফিনালেতে সবাই দারুনভাবে কোরআন তিলাওয়াত করেন। তারপর প্রতিযোগিতার নিয়ম অনুসারে এখান থেকে বেছে নেওয়া হয় প্রতি বিভাগের তিন জন করে বিজয়ীকে। এই ৯ বিজয়ীর হাতে তুলে দেওয়া হয় পুরষ্কার।

এই প্রতিযোগিতায় ৩ থেকে ৬ বছর বয়সভিত্তিক গ্রুপে বিজয়ী হন কুমিল্লার সাকিবুল ই’স’লা’ম (প্রথম), ময়মনসিংহের সুহাইবা ই’স’লা’ম রুশদা (দ্বিতীয়) এবং ঢাকা দক্ষিনের মোসাম্মাৎ আমিনা রহমান মামনুন। ৭ থেকে ১১ বছর বয়সভিত্তিক গ্রুপে পুরষ্কার জিতেছেন বরিশালের মোহাম্ম’দ ফাহিমুর রহমান (প্রথম), ময়মনসিংহের মোহাম্ম’দ আবদুর রহমান ইয়াসিন (দ্বিতীয়) এবং বগুড়ার ফারিয়া আক্তার (তৃতীয়)। ১২ থেকে ১৬ বছর বয়সভিত্তিক গ্রুপে পুরষ্কার জেতেন ময়মনসিংহের মোহাম্ম’দ লাবিব আল হাসান (প্রথম), বরিশালের নুহা ই’স’লা’ম মা’রিয়া (দ্বিতীয়) এবং ঢাকা উত্তরের মোহাম্ম’দ রায়হান হোসেন (তৃতীয়)।

ভিন্নধ’র্মী এই আয়োজন স’ম্প’র্কে ‘নগদ’এর নির্বাহী পরিচালক এবং নগদ ই’স’লা’মিক শরীয়াহ সুপারভিসারি কমিটির সদস্য মোহাম্ম’দ আমিনুল হক বলেন, “সম্পূর্ণ ই’স’লা’মিক শরিয়াহ ভিত্তিক প্লাটফর্ম হিসেবে এই ধরনের আয়োজন করতে পেরে আম’রা গর্বিত। আমি মনে করি, ‘সন্তানের কণ্ঠে কোরআন তিলাওয়াত’ এর মতো আয়োজন ধ’র্মপ্রা’ণ মু’সলমানদের মধ্যে কোরআন চর্চাকে আরোও উদ্বুদ্ধ করবে। ‘নগদ ই’স’লা’মিক’ আগামীতেও এরকম আরোও ভিন্নধ’র্মী আয়োজন করবে।”

Back to top button