জাতীয়

মহানবীকে (সা:) কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, আ’দা’লতে আকাশ সাহার স্বীকারোক্তি

নড়াইলের লোহাগড়া উপজে’লার দিঘলিয়া সাহাপাড়ার কলেজছাত্র আকাশ সাহা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে মহানবীকে (সা:) নিয়ে কটূক্তি করে পোস্ট দেওয়ার কথা স্বীকার করে আ’দা’লতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। গত ২০ জুলাই রি’মা’ন্ড শেষে আকাশ সাহা তার পরিচালনাধীন ফেসবুক আইডি থেকে নিজেই মহানবীকে (সা:) কটুক্তিমূলক পোষ্ট দিয়েছেন ম’র্মে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন।

আকাশ সাহা গত ১৫ জুলাই ফেসবুকে মহানবীকে (সা:) নিয়ে কটূক্তি করে পোস্ট দেয়। ধ’র্ম অবমাননার অ’ভিযোগ এনে পরদিন দিঘলিয়া গ্রামের সালাউদ্দিন কচি বাদী হয়ে লোহাগড়া থা’নায় একটি মা’ম’লা করেন। ওই মা’ম’লায় অ’ভিযু’ক্ত আকাশ সাহাকে খুলনা জে’লার ডুমুরিয়া উপজে’লার প্রত্যন্ত এলাকা থেকে গ্রে’প্তা’র করে পু’লিশ। আকাশ সাহা উপজে’লার নবগঙ্গা ডিগ্রি কলেজের ছাত্র ও দিঘলিয়া গ্রামের সাহাপাড়ার আশোক সাহার ছে’লে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ১৭ জুলাই লোহাগড়া আমলী আ’দা’লতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো: মোরশেদুল আলম এর আ’দা’লতে ৭ দিনের রি’মা’ন্ড চেয়ে আবেদন করেন মা’ম’লার ত’দ’ন্তকারী কর্মক’র্তা। আ’দা’লত শুনানী শেষে আকাশ সাহার ৩ দিনের রি’মা’ন্ড মঞ্জুর করেন। রি’মা’ন্ড শেষে ২০ জুলাই একই আ’দা’লতে আকাশ সাহা তার পরিচালনাধীন ফেসবুক আইডি থেকে নিজেই মহানবী হযরত (সা:) কটুক্তিমূলক পোষ্ট দিয়েছেন ম’র্মে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী
দিয়েছেন।

এ ঘটনার জেরে সাহাপাড়ার সনাতন ধ’র্মালম্বিদের বাড়িঘর, দোকান ও মন্দির ভাঙচুর এবং একটি বাড়িতে অ’গ্নিসংযোগ করে বিক্ষুব্ধ জনতা। এ ঘটনায় পু’লিশ বাদী হয়ে লোহাগড়া থা’নায় অ’পর একটি মা’ম’লা করেন। সে মা’ম’লায় ভিডিও ফুটেজের ভিত্তিতে মোট ১০ জনকে আ’ট’ক করে পু’লিশ। মা’ম’লার ত’দ’ন্তকারী কর্মক’র্তা এসআই মিজানুর রহমান আ’ট’ককৃতদের ৭ দিনের রি’মা’ন্ড চেয়ে আ’দা’লতে আবেদন করে।

আ’দা’লত প্রত্যেককে তিন দিনের রি’মা’ন্ড মঞ্জুর করেন। রি’মা’ন্ড শেষে আসামীদের জামিনের আবেদন করলে আ’দা’লত জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নড়াইলের পু’লিশ সুপার প্রবীর কুমা’র রায় (পিপিএম বার)। এখন ওই এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলেও জানান জে’লা পু’লিশের এই কর্মক’র্তা।

Back to top button