জাতীয়

ভিক্ষার টাকা ছিনিয়ে নিতে খু’ন করা হয় বৃদ্ধকে

মানসিক ভা’রসাম্যহীন তৈয়ব পেয়াদার (৭০) কাছে থাকা ভিক্ষার টাকা ছিনিয়ে নিতেই তাকে খু’ন করা হয়। রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে চাঞ্চল্যকর এ হ’ত্যাকা’ণ্ডে জ’ড়ি’ত সাঈদ ফকির বুধবার (৩ আগস্ট) রাতে গ্রে’প্তা’র হওয়ার পর পু’লিশের কাছে এ স্বীকারোক্তি দেয়।

গ্রে’প্তা’রকৃত সাঈদ ফকির গোয়ালন্দ পৌরসভা’র ৩নং ওয়ার্ডের নছরউদ্দিন সরদারপাড়ার চেনেরউদ্দিন ফকিরের ছে’লে।গত ৭ মে গোয়ালন্দ শহরের এফকে টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের বারান্দা থেকে মানসিক ভা’রসাম্যহীন তৈয়ব পেয়াদার র’ক্তাক্ত লা’শ উ’দ্ধা’র করে পু’লিশ। এ ঘটনায় নি’হ’তের ছে’লে মামুন পেয়াদা অ’জ্ঞা’ত ব্যক্তিদের আ’সা’মি করে পরদিন গোয়ালন্দ ঘাট থা’নায় এসে মা’ম’লা দায়ের করেন।

মা’ম’লার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, খু’ন হওয়া তৈয়ব পেয়াদার বাড়ি ঝালকাঠি জে’লার নলছটি উপজে’লার দক্ষিণ ডোবরা গ্রামে। ঘটনার প্রায় ৩ মাস আগে তিনি মানসিক ভা’রসাম্য হারিয়ে বাড়ি থেকে নিরুদ্দেশ হন। পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাচ্ছিলেন না। তবে খু’ন হওয়ার পর পু’লিশের মাধ্যমে তারা বিষয়টি জানতে পারেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থা’নার ওসি স্বপন কুমা’র মজুম’দার জানান, মানসিক ভা’রসাম্যহীন ব্যক্তি খু’নের ঘটনায় মা’ম’লা দায়েরের পর ঘটনা ত’দ’ন্তে পু’লিশ মাঠে নামে এবং এ হ’ত্যাকা’ণ্ডে সাঈদ ফকিরের জ’ড়ি’ত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয়। পরে গো’প’ন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে উপজে’লার মইজউদ্দিন মণ্ডলপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রে’প্তা’র করা হয়। পরে সাঈদ ফকিরের স্বীকারোক্তি মতে হ’ত্যাকা’ণ্ডে ব্যবহৃত ধারালো চাকুটি শহরের কলেজপাড়ার একটি ঝোপের মধ্য থেকে উ’দ্ধা’র করা হয়।

গ্রে’প্তা’রকৃত আ’সা’মি পু’লিশকে জানায়, মানসিক ভা’রসাম্যহীন তৈয়ব পেয়াদার কাছে থাকা টাকা নেওয়ার সময় বাধা দেওয়ার তাকে চাকু দিয়ে কু’পিয়ে হ’ত্যা করা হয়। যাওয়ার সময় ওই স্থানে চাকুটি ছুড়ে ফেলে দেয়া হয়। আ’সা’মিকে আ’দা’লতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও ওসি জানান।

Back to top button