আন্তর্জাতিক

খাদ্য সহায়তা পেতে দীর্ঘ লাইন যু’ক্তরাষ্ট্রে

যু’ক্তরাষ্ট্রের ফিনিক্স, অ্যারিজোনা থেকে শুরু করে মিসিসিপির জ্যাকসনের মানুষেরা খাদ্য ব্যাংক এবং মোবাইল প্যান্ট্রি থেকে খাদ্য সহায়তা পাওয়ার জন্য দীর্ঘ লাইনে অ’পেক্ষা করছে।

যু’ক্তরাষ্ট্রে ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি খাদ্য থেকে গ্যাস, বাড়িভাড়া সবকিছুর দাম বাড়িয়ে দিচ্ছে। এর ফলে অনেক মানুষের জন্য তাদের প্রয়োজনীয় খাদ্য ক্রয় কঠিন হয়ে গেছে।

সেইন্ট মেরি’স ফুডব্যাংকের গণমাধ্যম স’ম্প’র্কের পরিচালক জেরি ব্রাউন বলেছেন, ফিনিক্সে নির্দিষ্ট আয়ের অনেক মানুষ, বিশেষ করে আমাদের প্রবীণ সম্প্রদায়ের অনেকে মুদি দোকানে যান এবং বিশেষ করে দুধ, ডিম এবং মাংসের মতো প্রয়োজনীয় দ্রব্যের আকাশ ছোঁয়া দাম দেখেন। তারা এমন দাম পরিশোধে সক্ষম নাও হতে পারেন।

খাদ্যের চাহিদা ক্রমাগতভাবে বাড়ছেই। কেউ কেউ উদ্বিগ্ন যে খাদ্য পরিস্থিতি ক’রো’নাভাই’রাস মহামা’রির সর্বোচ্চ সংক্রমণের সময় যতটা গুরুতর হয়ে উঠেছিল ততটা হয়ে উঠতে পারে।

ফুড ফর আদার্সের নির্বাহী পরিচালক অ্যানি টার্নার বলেন, খাদ্যের চাহিদা বেড়ে গেলেও খাদ্যের অনুদান কমে গেছে।ও’কনেল বলেন, ‘আমি আশাবাদী যে, মানুষ ক’রো’নাভাই’রাস মহামা’রি চলাকালীন খাদ্য সহায়তা প্রদানের জন্য যেরকম সম’র্থন দিয়েছিল, সেরকম করবে।’

তিনি বলেন, ‘আম’রা স্থানীয় কৃষকদের বলছি যে, লোকজনের মধ্যে বিতরণ করার উদ্দেশ্যে ফল এবং সবজি সংগ্রহ করার জন্য আম’রা স্বেচ্ছাসেবীর ব্যবস্থা করব।’

 

Back to top button